Data Science

করোনা ভাইরাসে প্রথম মৃত্যু থেকে ক্রমযোজিত মৃতের সংখ্যা ও বাংলাদেশের তুলনামূলক অবস্হান

করোনাভাইরাস-এ প্রথম রিপোর্টেড মৃত্যু থেকে বর্তমান অবস্থায় পৌঁছতে কতদিন লেগেছে তার একটি তুলনামূলক চিত্র

ডেটা সায়েন্টিস্ট হওয়ার প্রস্ততি

ডেটা সায়েন্স এখন হট টপিক। ডেটা সায়েন্টিস্ট-দের জব মার্কেটে অনেক ডিম্যান্ড। বিদেশের মতো বাংলাদেশে ডেটা সায়েন্সের ব্যবহার এখনো সেরকমভাবে শুরু না হলেও ভেতরে ভেতরে তার প্রস্ততি চলছে। মার্কেটের দিকে তাকালেই আমরা সেটি আন্দাজ করতে পারি। বিশেষ করে তরুণ উদ্যোক্তা, ইন্টারনেট-ভিত্তিক ব্যবসা প্রসারের চিন্তাভাবনা, সরকারের সদিচ্ছা এবং তরুণ মন্ত্রী ও উপদেষ্টাদের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রচেষ্টায় পজিটিভলি কাজ করা এবং সর্বোপরি ইন্টারনেট ব্যবহারকারিদের এক্সপোনেনশিয়াল বৃদ্ধি অচিরেই আমাদের ব্যবসা, বাণিজ্য, মার্কেটিংকে এমনভাবে বদলে দেবে যা আমরা এই মুহূর্তে অনেকেই বিশ্বাস করতে পারছিনা।

ডেটা সায়েন্স- আপনার উপযুক্ত জব কোনটি?

ডেটা সায়েন্স- আপনার উপযুক্ত জব কোনটি– এটি আজকের লেখার বিষয়। এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি টপিক। কেননা জব মার্কেটে নামার আগেই জানতে হবে কোন ধরনের জবের সাথে আপনার স্কিলসেট মেলে এবং কোন ধরনের জবের ফাংশন কী। হার্ভার্ড বিজনেস রিভিউ ২০১২ সনে লিখেছিল একবিংশ শতাব্দীর সেক্সিয়েস্ট জব হলো ডেটা সায়েন্স। এর সত্যতা প্রমাণের দরকার নেই; চাকরি বাজারে তাকালেই এর সত্যতা মেলে। আগের লেখায় বলেছিলাম ডেটা সায়েন্স এখন হট টপিক। তেমনি হট এর চাকুরির বাজার। আর বাজারের চাহিদা মেটাতে আমেরিকা এবং কানাডার অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ে সম্প্রতি ডেটা সায়েন্স প্রোগ্রাম চালু করেছে। ধারণা করা যায় এই অনেকদিন অব্যাহত থাকবে যতদিন না বাজারে ডেটা সায়েন্টিস্টদের চাহিদার সাথে যোগানের সমন্বয় হয়।

ডেটা সায়েন্স কী এবং ডেটা সায়েন্টিস্ট কারা?

ডেটা সায়েন্স এখন হট টপিক। একাডেমিয়া থেকে ইন্ডাস্ট্রিতে চলে আসার পর প্রথম যে সমস্যা অনুভব করেছি সেটা হলো কাউকে সহজে বোঝানো যায় না আমি কী করি। আমেরিকাতে ইউনিভার্সিটির শিক্ষকদের প্রফেসর বলে। প্রফেসর বললে সবাই বোঝে কাজটা কী। ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করছি ডেটা সায়েন্টিস্ট হিসেবে। কেউ জিজ্ঞেস করলে এক কথায় যদি বলি ডেটা সায়েন্টিস্ট, তখন অবধারিতভাবে মুখের অভিব্যক্তি পরিবর্তিত হয়ে ভাবটা এমন হয় যেন ডেটা সায়েন্টিস্ট– সেটা আবার কী? অনেকে প্রশ্ন করে –